Text size A A A
Color C C C C
সর্ব-শেষ হাল-নাগাদ: ২৩rd মার্চ ২০২০

প্রকল্প পরিচিতি

১.            পটভূমি:

 

বিশ্ব খাদ্য কর্মসূচি তাদের ইমারজেন্সী প্রোগ্রামের আওতায় ২০০১ সালে যশোর জেলায় অত্যন্ত স্বল্প পরিসরে স্কুল ফিডিং কার্যক্রম চালু করে। পরবর্তীতে যশোর জেলার অভিজ্ঞতা ইতিবাচক হওয়ায় স্কুল ফিডিং কর্মসূচিকে তাদের নিয়মিত কান্ট্রি প্রোগ্রামের অন্তর্ভূক্ত করে। বিশ্ব খাদ্য কর্মসূচি’র তত্ত¡াবধানে জাতীয় এবং আন্তর্জাতিক পর্যায়ের পরামর্শক দ্বারা সম্পাদিত সমীক্ষা পর্যালোচনায় দেখা গেছে যেসকল উপজেলাতে ফিডিং কর্মসুচি চালু ছিল, সেসকল উপজেলার শিক্ষা প্রতিষ্ঠানসমূহের শিক্ষার্থী ভর্তির হার, উপস্থিতির হার, প্রাথমিক শিক্ষা চক্র সমাপনীর হার, নন ফিডিং উপজেলার তুলনায় উল্লেখযোগ্য হারে বেশী ছিল। এ ছাড়া ফিডিং উপজেলায় ড্রপ আউটের হারও নন ফিডিং উপজেলার তুলনায় কম ছিল।

 

প্রাথমিক শিক্ষাকে সকল স্তরের শিক্ষা ব্যবস্থার বুনিয়াদ হিসেবে বিবেচনা করে বিভিন্ন ধরণের উন্নয়ন কর্মকান্ড বাস্তবায়ন হচ্ছে। বিশ্ব খাদ্য কর্মসূচি পরিচালিত সমীক্ষা বিবেচনায় নিয়ে সরকারের নিজস্ব অর্থায়নে প্রথমবারের মত অপেক্ষাকৃত দারিদ্র পীড়িত উপজেলাকে অগ্রাধিকার দিয়ে স্কুল ফিডিং প্রকল্প গ্রহণ করে এবং জুলাই ২০১০ সাল থেকে বাস্তবায়নের জন্য অনুমোদিত হয়। বিশ্ব খাদ্য কর্মসূচি এ প্রকল্পে একদিকে যেমন কারিগরি সহযোগিতা প্রদান করছে, অন্যদিকে তেমনি একই প্রকল্পের অধীনে নিজস্ব অর্থায়নে ফিডিং কর্মসূচিও বাস্তবায়ন করে চলেছে।

 

২.           প্রকল্পের লক্ষ্য/উদ্দেশ্য:

  • প্রাথমিক বিদ্যালয়ে গমনোপযোগী দরিদ্র শিশুদের ভর্তি হার বৃদ্ধিকরণ
  • প্রাথমিক বিদ্যালয়ে ভর্তিকৃত ছাত্র-ছাত্রীদের নিয়মিত উপস্থিতির হার বৃদ্ধিকরণ
  • প্রাথমিক বিদ্যালয়ে ভর্তিকৃত ছাত্র-ছাত্রীদের ঝরে পড়ার প্রবণতা রোধকরণ
  • প্রাথমিক শিক্ষা চক্রের সমাপ্তির হার বৃদ্ধিকরণ
  • প্রাথমিক বিদ্যালয়ের ছাত্র-ছাত্রীদের দৈনন্দিন পুষ্টি চাহিদা পূরণ করা
  • প্রাথমিক শিক্ষার গুণগত মান উন্নয়ন

৩.  প্রকল্পভুক্ত বিদ্যালয়ের ধরণ:

  • প্রকল্পভূক্ত উপজেলার সকল সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় (নতুন জাতীয়করণসহ);
  • প্রকল্প এলাকার ১৫০০ বিদ্যালয়বিহীন গ্রামে বিদ্যালয় স্থাপন প্রকল্পের আওতায় নির্মিত ও চালুকৃত বিদ্যালয়;
  • প্রকল্পভূক্ত শিশুকল্যাণ ট্রাস্ট পরিচালিত প্রাথমিক বিদ্যালয়;
  • প্রকল্প এলাকার স্বতন্ত্র এবতেদায়ী মাদ্রাসায়;

 

৪.   উপজেলা প্রকল্পভুক্তকরণের বৈশিষ্ট্য:

বিশ্ব ব্যাংক, বিশ্ব খাদ্য কর্মসূচী ও বাংলাদেশ ব্যুরো স্টাটিসটিক্স কর্তৃক যৌথভাবে প্রণীত দারিদ্র মানচিত্র (চড়াবৎঃু গধঢ়) অনুযায়ী দারিদ্র প্রবণ উপজেলাসমূহ প্রকল্পে অন্তর্ভুক্ত করা হয়েছে।

৫.   দারিদ্র পীড়িত এলাকায় স্কুল ফিডিং প্রকল্পটি জুলাই ২০১০ সাল হতে শুরু হয়ে অদ্যাবধি চলমান আছে। ইতোমধ্যে প্রকল্পটি ৩ বারের জন্য        সংশোধন করা হয়েছে। প্রতিটি সংশোধনে সরকারী অংশে প্রকল্পের কর্মএলাকা সম্প্রসারিত হয়েছে। সংশোধনীর বিবরণ নি¤œরুপ:

ক.          মূল ডিপিপি:

                প্রাক্কলিত ব্যয়: মোট: ১১৪২৭৯.৯১(জিওবি: ৫৯৭৭০.৫৭, প্রকল্প সাহায্য: ৫৪৫০৯.৩৪)

                মেয়াদ: জুলাই ২০১০-জুন ২০১৪

                কর্মএলাকা: মোট: ৮৬ উপজেলা (জিওবি:৩৪ উপজেলা, ডবিউ এফ পি: ৫২ উপজেলা)

                শিক্ষার্থীর সংখ্যা: মোট: ২৬.২৮ লক্ষ (জিওবি: ১২.৪৮ লক্ষ, ডবিউ এফ পি: ১৩.৮০ লক্ষ)

খ.           ১ম সংশোধিত ডিপিপি:

                প্রাক্কলিত ব্যয়: মোট: ১৫৭৭৯৩.১১ (জিওবি: ৮৭৫৭৪.৫০, প্রকল্প সাহায্য: ৭০২১৮.৬১)

                মেয়াদ: জুলাই ২০১০-ডিসেম্বর ২০১৪

                কর্মএলাকা: মোট: ৭২ উপজেলা (জিওবি: ৪২ উপজেলা, ডবিউ এফ পি: ৩০ উপজেলা)

                শিক্ষার্থীর সংখ্যা: মোট: ২৬.৪০ লক্ষ (জিওবি: ১৮.৩০ লক্ষ, ডবিউ এফ পি: ৮.০৫ লক্ষ)

গ.           ২য় সংশোধিত ডিপিপি:

                প্রাক্কলিত ব্যয়: মোট: ৩১৪৫৫২.২০ (জিওবি: ২১৪৫৯৯.৬৫, প্রকল্প সাহায্য: ৯৯৯৫২.৫৫)

                মেয়াদ: জুলাই ২০১০-জুন ২০১৭

                কর্মএলাকা: মোট: ৯৩ উপজেলা [জিওবি: ৭২ উপজেলা, ডবিউ এফ পি: ২১ উপজেলা (কপি সংযুক্ত)]

                শিক্ষার্থীর সংখ্যা: মোট: ৩৩.৯৪ লক্ষ (জিওবি: ২৮.৫১ লক্ষ, ডবিউ এফ পি: ৫.৪৩ লক্ষ)

 

ঘ.           ৩য় সংশোধিত ডিপিপি:

২০১৭ সনের ০১ জুলাই হতে ৩০ জুন ২০১৮ পর্যন্ত বিশ্ব খাদ্য কর্মসূচীর অংশে ২২ টি উপজেলা এবং জিওবি অংশে ৮২টি উপজেলার সংস্থানের প্রস্তাব করা হয়েছে। ২০১৮ সনের ০১ জানুয়ারি বিশ্ব খাদ্য কর্মসূচী অংশের ৩টি উপজেলা জিওবি অংশে হস্তান্তরিত হবে ফলে, জিওবি অংশে মোট উপজেলার সংখ্যা হবে ৮৫টি এবং বিশ্ব খাদ্য কর্মসূচীর অংশে ১৯টি। ২০১৮ সনের ০১ জুলাই থেকে আরো ৯টি উপজেলা জিওবি অংশে হস্তান্তরিত হবে। সেক্ষেত্রে ২০১৮ সনের ০১ জুলাই থেকে বিশ্ব খাদ্য কর্মসূচীর অংশে ১০ টি উপজেলা এবং জিওবি অংশে ৯৪টি উপজেলার সংস্থান রাখা হয়েছে।

                প্রাক্কলিত ব্যয়: মোট: ৪৯৯১৯৭.২৯ (জিওবি: ৩৭৩৭০৬.৮২, প্রকল্প সাহায্য: ১২৫৪৯০.৪৭)

                মেয়াদ: জুলাই ২০১০-ডিসেম্বর ২০২০

                প্রকল্পভুক্ত বিদ্যালয় ও সুবিধাভোগী শিক্ষার্থী সংখ্যার বিস্তারিত বিবরণ :

প্রকল্পভূক্ত এলাকার সুবিধাভোগী মোট ছাত্র-ছাত্রীর সংখ্যা মোট: ৩১.৬২ লক্ষ (জিওবি: ২৬.৭১ লক্ষ, ডবিউ এফ পি: ৪.৯১ লক্ষ) এবং বিদ্যালয়ের সংখ্যা মোট: ১৫,৭৮৮টি (জিওবি: ১২,৩৫৬ ও ডবিউ এফ পি: ৩,৪৩২)

                ০১ জুলাই ২০১৭ হতে ৩১ ডিসেম্বর ২০১৭ পর্যন্ত কর্ম-এলাকা ও শিক্ষার্থীর সংখ্যা বিবরণ:

                কর্মএলাকা: মোট: ১০৪ উপজেলা (জিওবি: ৮২ উপজেলা, ডবিউ এফ পি: ২২ উপজেলা)

                শিক্ষার্থীর সংখ্যা: মোট: ৩১.৬২ লক্ষ (জিওবি: ২৬.৭১ লক্ষ, ডবিউ এফ পি: ৪.৯১ লক্ষ)

                বিদ্যালয় সংখ্যা: মোট: ১৫,৭৮৮টি (জিওবি: ১২,৩৫৬ ও ডবিউ এফ পি: ৩,৪৩২)

 

           ০১ জানুয়ারি ২০১৮ হতে ৩০ জুন ২০১৮ পর্যন্ত কর্ম-এলাকা ও শিক্ষার্থীর সংখ্যা বিবরণ:

                কর্মএলাকা: মোট: ১০৪ উপজেলা (জিওবি: ৮৫ উপজেলা, ডবিউ এফ পি: ২৯ উপজেলা)

                শিক্ষার্থীর সংখ্যা: মোট: ৩১.৪২ লক্ষ (জিওবি: ২৮.২৩ লক্ষ, ডবিউ এফ পি: ৩.১৯ লক্ষ)

                বিদ্যালয় সংখ্যা: মোট: ১৫,২৯৬টি (জিওবি: ১২,৯৫২ ও ডবিøউএফপি: ২,৩৪৪)

 

            ০১ জুলাই ২০১৮ হতে প্রকল্প মেয়াদকালীন সময় পর্যন্ত কর্ম-এলাকা ও শিক্ষার্থীর সংখ্যা বিবরণ:

                কর্মএলাকা: মোট: ১০৪ উপজেলা (জিওবি: ৯৪ উপজেলা, ডবিউ এফ পি: ১০ উপজেলা)

                শিক্ষার্থীর সংখ্যা: মোট: ৩২.৩১ লক্ষ (জিওবি: ৩০.১৫ লক্ষ, ডবিউ এফ পি ২.১৬ লক্ষ)

                বিদ্যালয় সংখ্যা: মোট: ১৫,২৮৯টি (জিওবি: ১৩,৪৮২ ও ডবিউ এফ পি: ১,৮০৭)

* বিশ্ব খাদ্য কর্মসূচী অংশে পরিচালিত উপজেলাসমূহে (ক) প্রকল্পভূক্ত উপজেলার সকল সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় (নতুন জাতীয়করণসহ); (খ) প্রকল্প এলাকার ১৫০০ বিদ্যালয়বিহীন গ্রামে বিদ্যালয় স্থাপন প্রকল্পের আওতায় নির্মিত ও চালুকৃত বিদ্যালয়; (গ) প্রকল্পভূক্ত শিশুকল্যাণ ট্রাস্ট পরিচালিত প্রাথমিক বিদ্যালয়; এবং (ঘ) প্রকল্প এলাকার স্বতন্ত্র এবতেদায়ী মাদ্রাসার পাশাপাশি এনজিও স্কুলেও বিস্কুট সরবরাহ করে থাকে। বিশ্ব খাদ্য কর্মসূচী  হতে জিওবি অংশে হস্তান্তরকৃত ১২টি উপজেলায় এনজিও স্কুল-কে অন্তর্ভুক্ত করা হয়নি। এজন্য বিদ্যালয় সংখ্যা কিছুটা কমেছে।

 

৬.           অর্থের উৎস

বাংলাদেশ সরকার ও বিশ্ব খাদ্য কর্মসূচি (WFP)

৭.           প্রকল্পভূক্ত উপজেলার বিবরণ

দেশের ৩৫টি জেলার দারিদ্র পীড়িত ১০৪টি উপজেলায় এই প্রকল্পের কার্যক্রম বাস্তবায়িত হচ্ছে (জিওবি অংশে ৯৩টি উপজেলা এবং বিশ্ব খাদ্য কর্মসূচি’র অর্থায়নে ১১টি উপজেলা)।

৮.           প্রকল্পভুক্ত এলাকা:

ক) সরকারি অর্থায়নে: ৯৪ উপজেলা

খ) বিশ্ব খাদ্য কর্মসূচি’র অর্থায়নে: ১১উপজেলা

গ) অক্টোবর ২০১৯ হতে প্রকল্প মেয়াদ ডিসেম্বর ২০২০ পর্যন্ত নি¤œবর্ণিত ৮টি বিভাগের ১৬টি উপজেলায় “জাতীয় স্কুল ফিডিং নীতি” (অনুমোদিত) অনুযায়ী ভিন্নতর স্কুল ফিডিং-এর পাইলট উদ্যোগ গ্রহণ করা হবে:

 

বিভাগ

জেলা

উপজেলার ক্রঃ নং

উপজেলার নাম

 

সিলেট

 

হবিগঞ্জ

লাখাই

সুনামগঞ্জ

ধর্মপাশা

ময়মনসিংহ

 

ময়মনসিংহ

ধুবাউড়া

জামালপুর

ইসলামপুর

ঢাকা

 

গোপালগঞ্জ

টুঙ্গীপাড়া

রাজবাড়ী

কালুখালী

রাজশাহী

 

নওগাঁ

পোরসা

পাবনা

বেড়া

চট্টগ্রাম

 

লক্ষ্মীপুর

সদর

চাঁদপুর

১০

হাইমচর

খুলনা

 

খুলনা

১১

বটিয়াঘাটা

যশোর

১২

ঝিকরগাছা

বরিশাল

 

বরগুণা

১৩

বামনা

পিরোজপুর

১৪

মঠবাড়ীয়া

রংপুর

লালমনিরহাট

১৫

হাতিবান্ধা

দিনাজপুর

১৬

ফুলবাড়ী


Share with :

Facebook Facebook